কিভাবে আপনি একজন দক্ষ কনটেন্ট রাইটার হবেন ও কাজ পাবেন।

5
(1)

একজন কন্টেন্ট রাইটার হলো সব জায়গার ইনফর্মেশনের মুল।  Content Writer দের কাজ হলো বিভিন্ন মাধ্যমে মনের মাধুরী মিশিয়ে সুন্দর করে চমকপ্রদ লেখক। আর আপনি একজন সফল কন্টেন্ট রাইটার তখনেই হবেন যখন আপনার লেখা পছন্দ করবে অনলাইনের গুগল, বিংক, ইয়াহু সহ পাঠকরা।  এছাড়া অফলাইনের পাঠকরা আপনার লেখা ও ইনফর্মেশন পড়ে ভাল কিছু শিখতে পারবে ও জানতে পারবে। বন্ধুরা আজ আপনাদের জানাচ্ছি একজন কন্টেন্ট রাইটার এর সকল কিছু।  আশাকরি লেখাটি সমপূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়বেন ও কন্টেন্ট রাইটার এর বিষয়ে সব কিছু জানতে পারবেন। চলুন শুরু করা যাক।

কারা কন্টেন্ট রাইটার?

পৃথিবীতে রয়েছে বহু ধরনের ভাষা একেক ভাষার রয়েছে একেক রকম গ্রামেটিক্যাল ও কালচার।  ভাষার কালচার যাই হোক না কেন সেই ভাষা মানুষের মাঝে সহ বিস্তারিত জায়গায় খুব সুন্দর করে উপস্থাপন করে লেখতে হবে অবশ্যই।  আর লিখতে যেহেতু হবেই তাই এই লেখার কাজটি করবে একজন কনটেন্ট রাইটার। একজন ভাল কন্টেন্ট রাইটার ছাড়া কখনও কোন ইনফর্মেশন ও রিভিউ মানুষের মাঝে পৌছে দেওয়া যায় না।

কন্টেন্ট রাইটার জব

 

বর্তমান বিশ্বে সব কিছু তাল মিলিয়ে অনেক কম্পেডিশন চলছে। বিশেষ করে অনলাইনের মাধ্যমে সবাই তার নিজেস্ব সব কিছু সবার মাঝে উপস্থাপন করতে চায়। এই ধরুন সংবাদ মাধ্যম থেকে শুরু করে ই-কমার্স সাইট,  ফার্ম,  কোম্পানী,  প্রোডাক্ট সহ সব কিছু মানুষ ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে অন্যদের কাছে পৌছে দিতে চায়।  আর এর জন্য দরকার হয় একজন দক্ষ কন্টেন্ট রাইটারের।  Content Writer দের জব দুই ধরনের হয়ে থাকে
০১. ফ্রিল্যান্সিং কন্টেন্ট রাইটার
০২. বেতনভূক্ত কন্টেন্ট রাইটার

ফ্রিল্যান্সিং কন্টেন্ট রাইটার

আপনারা অনেকেরেই Freelancer এর সমদ্ধে ভাল ধারনা রয়েছে। যেখানে সবাই স্বাধীনভাবে কাজ করে উপার্জন করে। আপনি এখানে Freelancer Content Writer হিসেবে কাজ করতে পারবেন। আপনি এই প্লাটফর্ম এ কাজ করতে পারলে অনেক বায়ারের কাছ থেকে কাজ পাবেন দেশি বায়ার হোক অথবা বিদেশি বায়ার হোক আপনি এত পরিমানে কাজ পাবেন যে আপনাকে খাওয়ার সময়টুকুও দিবে না। বাংলাদেশ ও ভারতে অনেক ফ্রিল্যান্সিং কন্টেন্ট রাইটার রয়েছে যারা দিনে অথবা ঘন্টায় ৫০ ডলার থেকে ১২০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারে।

বেতনভূক্ত কন্টেন্ট রাইটার

আর এক শ্রেণীর রাইটার পাবেন যাহারা কোন ফার্ম, ম্যাগেজিন বা কোম্পানীতে মাসিক ভিত্তিতে কাজ করে থাকে। তাদের কাজ হলো যে কোন বিষয় নিয়ে লিখতে দিলে তাদের ভাল ইনফর্মেশন ও সুদর্শন লিখতে হবে। তাদের লেখার মধ্যেই সেই কোম্পানির ভাল মার্কেটিং হয়। তাই যারা বেতনভূক্ত কন্টেন্ট রাইটার তাদের দক্ষতা সব থেকে বেশি থাকে। তাদের সর্বনিম্ন বেতন হয়ে থাকে ১০ হাজার থেকে এক লক্ষ টাকা বা তারও বেশি। বেতনভূক্ত কন্টেন্ট রাইটারা চাকুরির পাশাপাশি  ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট এ লিখে অনেক সয় ভাল আয় করে থাকেন।

একজন কনটেন্ট রাইটারের কি কি গুন থাকতে হয়

একজন ভালমানের কন্টেন্ট রাইটারের অনেক রকমের গুন থাকতে হয়। আর তাদের মধ্যে যদি নিম্নের গুনগুলো না থাকে তাহলে তিনি একজন সফল কন্টেন্ট রাইটার কখনও হতে পারবেন না:
• পড়াতে হবে অধিক
• রাফ লিখতে হবে খুব
• রিসোর্চ এর দক্ষতা
• গ্রামেটিক্যাল এ দক্ষতা
• ধৈর্যশক্তি থাকতে হবে বেশি
• সহজ সরল লেখা
• বায়ারের চাওয়ার থেকে বেশি দেওয়া
• গুগল এডসেন্স এর ট্রাম বোঝা
• কি-ওয়ার্ড রিসোর্চ জানা
• কপি রাইটিং এর দক্ষতা
• অন্য রাইটারের থেকে ভাল লিখা
• বানানের দিকে নজর দেওয়া
• কম লেখায় বেশি ইনফর্মেশন দেওয়া

উপরক্ত বিষয়গুলো যদি একজন কন্টেন্ট রাইটারের মাঝে বিদ্যমান থাকে তাহলে নিঃসন্দেহে তিনি একজন ভাল রাইটার। আগের সময়ের কবি ও সাহিত্যিকরা কিন্তুু একজন কন্টেন্ট রাইটার।

কন্টেন্ট রাইটারের কাজ কি কি?

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের কন্টেন্ট রাইটার থাকে। বিশ্বে অনেক শ্রেণীর কন্টেন্ট রাইটার রয়েছে তারা সবাই কোথাও না কোথাও কাজ পায়। চলুন দেখি কিছু কন্টেন্ট রাইটারের কাজের জায়গাঃ

ব্রান্ড রাইটার
কেউ কেউ কোন ব্রান্ড কে সবার মাঝে পরিচিত করার জন্য লিখে থাকে। তাদের লেখার মাঝে ফুটে উঠে একটি কোম্পানির প্রডাক্ট অথবা সেই কোম্পানীর পরিচিতি।  এই সকল রাইটারদের বলা হয় ব্রান্ড রাইটার।  মূলত এরা কোম্পানী রিভিও,  এ্যামাজন প্রডাক্ট রিভিউ ও একক কোম্পানী রিভিউ মার্কেটিং করে সবার মাঝে ফুটে তুলে।
SEO কপি রাইটার
অনেক রাইটার রয়েছে যারা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে ইনফর্মেশর কালেক্ট করে কপি রাইটার লিখে থাকে।  এসকল রাইটার কাজ পায় মূলত যে সকল ক্লাইড গুগল এ্যাডসেন্স থেকে আয় করে থাকে। বর্তমানে এই Copy Writer দের গুরত্ব অনেক।  কপি রাইটার হলেও তারা কিন্তুু কোথাও থেকে লেখা কপি করে না।  কপি রাইটার এই জন্য বলা হয় যে তারা ভাল করে স্ট্যাডি করে অন্য রাইটারের থেকে ভাল কিছু লেখা উপহার দেয়।
সোশ্যাল মিডিয়া রাইটার
এই রাইটার রা অসাধারনভাবে ফেসবুক,  টুইটার, লিকংডিং এ অনেক সুন্দর করে লিখে থাকে। যদিও এই রাইটাররা কাজ অনেক কম পায় কিন্তু যদি কেউ একটা কাজ পায় এবং সেটি যদি ভাল হয় তাহলে কন্টিনিউয়াস কাজ পায় একই ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান থেকে।
টেকনিক্যাল রাইটার
বর্তমানে সব থেকে টেকনিক্যাল রাইটারের মূল্য বেশি।  কারন যে কোন বিষয়ে তাদের ভাল টেকনিক অর্জন করতে হয়। একভাবে বলা চলে যে এরাই বড় ইঞ্জিনিয়ার যে কোন মেশিনারিজ ও পার্টস এর বিষয়ে। এদের দক্ষ কিন্তুু শুধু লোখার মধ্যে সিমাবদ্ধ থাকে।  ইঞ্জিনে নিয়ে গেলে কিছুই করতে পারবে না ( হা হা) ।  তবে তাদের দেখার মধ্যে অনেক কিছু ফুটে উঠো।
বিজ্ঞাপন রাইটার
বেশিরভাগ সময়েই টিভিতে অনেক সুন্দর সুন্দর এ্যাড দেখতে পান।  অনেক এ্যাড দেখে হাসেন অনেক এ্যাড দেখে কাঁদেন। এগুলোর পিছনের গল্পগুলো একজন রাইটারের থাকে। তারা সুন্দর করে কন্টেন্ট রাইট করে দেয় সেই অনুযায়ী বাকি কাজ চলে। মূলত এ ধরনের রাইটার কে স্ক্রিপ্ট রাইটার বলা হয়। তবুও আমি এদের কন্টেন্ট রাইটারের জায়গায় যুক্ত করলাম।

একজন কন্টেন্ট রাইটারের ক্যারিয়ার কেমন

এখানে দেখতে হবে আপনি কোন ক্যাটাগরির রাইটার সেই অনুযায়ী আপনার কন্টেন্ট রাইটিং ক্যারিয়ার হবে।  আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং এ কাজ করতে চান তাহলে সারাদিন সারারাত কাজ করে যেতে হবে। আপনি যদি চাকুরি হিসেবে বেচে নেন তাহলে সেই অনুযায়ি করতে হবে। আর আপনি যদি আমার মত লেখক হোন তাহলে আপনার ক্যারিয়ার তেমনেই হবে। মোটকথা এই বিষয়গুলো আপনি আরও ভাল বুঝবেন যখন আপনি রাইটিং এর কাজ পাবেন এবং করবেন।

তাহলে আজ এ পর্যন্তই থাকল সবাই
ভাল থাকবেন এই কামনা রইল।

লেখাটি আপনার কাছে কেমন লেগেছে, অনুগ্রহ করে সে অনুযায়ী ভোট দিন

ভোট দিতে স্টার বাটনে চাপুন

We are sorry that this post was not useful for you!

Let us improve this post!

Tell us how we can improve this post?

পোস্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Comment